শনিবার, ১৫ মে, ২০২১

নাথসাধক দের সাধক বিশ্বাসের মূল কথা গুলি উল্লেখ করো প্রশ্নোত্তর

 

নাথসাধক দের সাধক বিশ্বাসের মূল কথা গুলি উল্লেখ করো প্রশ্নোত্তর বাংলা অনার্স bengali honours questions answer naathsadhok der sadhok biswaser mul kotha guli ullekh koro


                 প্রশ্নের মান - ৫/৬



প্রশ্ন: নাথসাধক দের সাধক  বিশ্বাসের মূল কথা গুলি উল্লেখ করো ।


উত্তর:- নাথসাধক সম্প্রদায় বাংলাদেশের সাধনক্ষেত্রে একটি অতি প্রাচীন শাখা । এরা মূলত শৈব কায়াসাধক । দশম শতাব্দীর দিকে তাদের বিশেষ প্রভাব দেখা যায় । এদের ধর্মকর্ম ও আচার আচরণকে কেন্দ্র করে অনেক ছড়া পাঁচালী , লোকগীতি , আখ্যান কাব্য  পাওয়া গেছে , সাহিত্যের ইতিহাসের যা অসামান্য ভূমিকা পালন করেছে । তাদের সাধন বিশ্বাসের মূল কথা গুলি সুত্রাকারে বলা হল -


প্রথমত : সব সহজ সাধকের ন্যায় তারাও প্রচলিত বেদ বিধিসম্মত পূজা রীতি , আচার আরণে বিশ্বাসী নন ।


দ্বিতীয়ত : সিদ্ধাই লাভ করলে সর্ব বিধি অলৌকিক ক্ষমতার অধিকার জন্মায় এই বিশ্বাস তাদের রচনায় পরিস্ফুট ।


তৃতীয়ত : তাদের সাধন লক্ষ্য দ্বিবিধ একটি চরম লক্ষ্য বা পরামুক্তি , অপরটি সাম্প্রতিক লক্ষ্য বা জীবন মুক্তি অর্থাৎ দেহের মধ্যে থেকেই মুক্তি । জীবন মুক্তির মধ্য দিয়েই পরা মুক্তি সম্ভব । জীবন মুক্ত সাধক সর্ব বিধি কামনা বাসনা কে জয় করেন , মৃত্যু তার কাছে পরাভূত । সর্ব বিধ সিদ্ধির তিনি অধীশ্বর । এই অবস্থার মধ্য দিয়েই তিনি শিব বিলীন হন । 


চতুর্থ : তাদের সাধন পথের প্রধান বাঁধা রমণী । কারণ দেহস্থ রস শোষণ করেই নাথেরা জীবন মুক্ত হন । নারী সেই দেহরস অপচয়ের কারণ । 


পঞ্চমত : দেহরস আত্মীকরণের যৌগিক পদ্ধতি সম্পর্কে গুহ্য রীতি ও গুরুবাদ অনুসরণ করা হত । তবে তান্ত্রিক কায়া সাধনের সঙ্গে এর কিছু সাদৃশ্য অবশ্য।আছে ।


উপরোক্ত এই সূত্র গুলি তাদের সাধন বিশ্বাসের মূল কথা । এরা সাধন প্রক্রিয়ার দ্বারা মোক্ষ লাভ করতেন ।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন