রবিবার, ১৬ মে, ২০২১

বৃন্দাবন দাস ও চৈতন্যে ভাগবত সম্পর্কে আলোচনা করো প্রশ্নোত্তর

 

বৃন্দাবন দাস ও চৈতন্যে ভাগবত সম্পর্কে আলোচনা করো প্রশ্নোত্তর বাংলা অনার্স bengali honours questions answer brindabon das o choitonno vagbot somporke alochona koro



                 প্রশ্নের মান - ৫/৬




প্রশ্ন: বৃন্দাবন দাস ও চৈতন্যে ভাগবত সম্পর্কে আলোচনা করো ।


উত্তর:- বাংলায় লেখা প্রথম চৈতন্য অবদান কাব্য বৃন্দাবন দাসের " চৈতন্যমঙ্গল " । পরে কৃষ্ণ দাস কবিরাজ বৃন্দাবন কে চৈতন্যলীলার ব্যাস বলে উল্লেখ করেছেন । সেই সময় আরও দুটি গ্রন্থ চৈতন্যমঙ্গল নামে দেখা হচ্ছিল বলেই বৃন্দাবনের মহান্তরা চৈতন্যমঙ্গল নামটি পাল্টে দেওয়ার কথা বলেছিলেন অপ্রামাণিক প্রেম বিলাসের উক্তি -


" চৈতন্য ভাগবতের নাম চৈতন্যমঙ্গল ছিল 


বৃন্দাবনের মহান্তরা ভাগবত আখ্যা দিল ।"



[   ] বৃন্দাবন দাস প্রত্যক্ষ ভাবে চৈতন্য লীলা দর্শন করেননি কেনোনা তিনি চৈতন্য পরবর্তী কবি ।  ডা: মজুমদারের মতে চৈতন্য ভাগবতের রচনা কাল ১৫৪৮ খ্রি: । আদি , মধ্য ও অন্ত এই তিনটি খন্ডে গ্রন্থ টি সম্পুর্ন করেছিলেন । আদি খন্ডে ১৫ টি অধ্যায় , মধ্য খন্ডে ২৭ টি অধ্যায় , অন্ত খন্ডে ১০ টি অধ্যায় আছে । আদি খন্ডে চৈতন্যর জন্ম থেকে গয়া প্রতাগমন পর্যন্ত বর্ণনা আছে । এ খানে শিশু চৈতন্যর মনোরম ও বাস্তব ছবি এঁকেছেন । বৃন্দাবন দাস পড়ুয়াদের নিয়ে সংকীর্তন আরম্ভ করলে অদ্ধৈত আচার্য বেশ খুশি হয়েছিলেন , বন্ধুদের বলেছিলেন 


" উহার অগ্রজ পূর্বে বিশ্বরূপ নাম 


আমার সঙ্গে আসি গীতা করিল ব্যাখ্যান ।"


মধ্য খন্ডে প্রত্যাগমনের পর থেকে চৈতন্যনের সন্ন্যাস গ্রহণ পর্যন্ত বিবরণ দিয়েছেন । এ খানে চৈতন্য গৃহ ত্যাগের কথা বৃন্দাবন দাস সংক্ষিপ্ত করেছেন । কিন্তু সংক্ষিপ্ত হলেও সে বর্ণনা পরিপূর্ন এবং হৃদয়গ্রাহি ।



[    ] অন্ত খন্ডে ১০ টি অধ্যায় আছে গৌড়ীয় ভক্তদের সঙ্গে মিলন ও গুন্ডিচা যাত্রা মহোৎসব বর্ণিত হয়েছে । বিশ্বাসের বন্দর ছেড়ে ব্যাকুললতার হাওয়ায় পাল তুলে কবির জীবন তরী ভক্তির স্রোতে ভাসতে ভাসতে চলেছে । অন্ত খন্ড টি হটাৎ শেষ হয়ে গেছে । সুকুমার সেন ও চৈতন্য ভাগবতের পরি সমাপ্তি কে আকস্মিক বলে মনে করেছেন । কৃষ্ণ দাস কবিরাজ ও একই ইঙ্গিত করেছেন । অর্থাৎ আদি , মধ্য খন্ড যেভাবে বর্ণিত হয়েছে অন্ত খন্ড একেবারেই সেভাবে বর্ণিত হয়নি । যাই হোক এই গ্রন্থ টি তে চৈতন্যদেবের ইশ্বর ভাব আর মানবিক পরিচয় দুইয়ের খুব সুন্দর মেল বন্ধন ঘটেছে ।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন