শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১

রামায়ণ অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর

 

বাংলা অনার্স রামায়ণ অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর Bengali honours ramayan oti songkhipto Questions Answer Bangla Study



                      প্রশ্নের মান - ১/২


১। রাবণের দুজন চর ছিল তাদের নাম কি ?


উত্তর:- শুক আর সারণ ।


২। সুগ্রিবের। দুজন শালার নাম কি ?


উত্তর:- ধুম্র আর ধুম্রাক্ষ ।


৩। বৈদ্যরাজ সুষেনের কতজন পুত্র ছিল ও তাদের নাম কি ?


উত্তর:- বৈদ্যরাজ সুষেনের দুইজন পুত্র ছিল । তাদের নাম হল - মহেন্দ্র আর দেবেন্দ্র ।


৪। বিদ্যুৎজ্জিহু কে ছিলেন ? তিনি কী তৈরী করেছিলেন ?


উত্তর:- বিদ্যুৎজ্জিহু ছিলেন রাবণের নিশাচর সৈন্য । তিনি রাবণের আদেশে মায়া শক্তির দ্বারা রামের মায়ামুন্ড ও ধনুক তৈরী করেছিলেন ।


৫। বালীর পুত্রের নাম কি ?


উত্তর:- বালীর পুত্রের নাম হল অঙ্গদ ।


৬। রাম , লক্ষণ , সীতা বনবাসে গিয়ে কোন বনে উপনীত হয়েছিল ?


উত্তর:- রাম , লক্ষণ , সীতা বনবাসে গিয়ে পঞ্চবটি বনে উপনীত হয়েছিল ।


৭। পঞ্চবটি বনে লক্ষণ কার নাক কান কেটে দিয়েছিল ?


উত্তর:- পঞ্চবটি বনে লক্ষণ লঙ্কার রাজা রাবণের ভগিনী শুপর্ণখার নাক কান কেটে দিয়েছিল ।


৮। কিষ্কিন্ধ্যা রাজ্যের রাজা কে ছিল ? তাকে কে বধ করে ? বধ করে কাকে এই কিষ্কিন্ধ্যা রাজ্যের সিংহাসনে বসান ?


উত্তর:- কিষ্কিন্ধ্যা রাজ্যের রাজা ছিল বালি । তাকে রামচন্দ্র বধ করে । বধ করে এই কিষ্কিন্ধ্যা রাজ্যের সিংহাসনে সুগ্রীব কে বসান ।


৯। সরমা কে ছিলেন ?


উত্তর:-  বিভীষনের স্ত্রী ছিলেন সরমা । 


১০। বিভীষনের পুত্রের নাম কি ?


উত্তর:- তরণী সেন ।


১১। লঙ্কার রাজা রাবণের মা কে ছিলেন ?


উত্তর:- লঙ্কার রাজা রাবণের মা ছিলেন নিকষা ।


১২। রাবণের মা নিকষা , রাবণকে কী উপদেশ দিয়েছিল ?


উত্তর:- রাবণের মা নিকষা রাবণ কে উপদেশ দিয়ে বলেছিল  সীতা দেবী কে শ্রীরামের কাছে ফিরিয়ে দিয়ে তার সাথে বন্ধুত্ব করতে ।


১৩। রাবণ সীতা কে হরণ করে এনে কোথায় রেখেছিল ?


উত্তর:- রাবণ সীতা কে হরণ করে এনে অশোক বনে রেখেছিল ।


১৪। কুম্ভকর্নের কতজন পুত্র ছিল ? তাদের নাম লেখো ?


উত্তর:- কুম্ভকর্নের দুজন পুত্র ছিল । তারা হল কুম্ভ আর নিকুম্ভ ।


১৫। ইন্দ্রজিতের মায়ের নাম কি লেখো ?


উত্তর:- ইন্দ্রজিতের মায়ের নাম হল মন্দোদরী ।


১৬। রাবণের পিতা ও পিতামহ কে ছিল ?


উত্তর:- রাবণের পিতা ছিল বিশ্বশ্রবা আর পিতামহ ছিল পুলস্ত্য ।


১৭। " নাগপাশ ব্রহ্মঅস্ত্র " কে কার উপর বর্ষণ করেছিল ?


উত্তর:-  " নাগপাশ ব্রহ্মঅস্ত্র " ইন্দ্রজিৎ , শ্রীরামচন্দ্র ও লক্ষণের  উপর বর্ষণ করেছিল ।


১৮। নাগপাশ ব্রহ্মঅস্ত্রের এক বানে কতগুলি সাপ হয় ?


উত্তর:- নাগপাশ ব্রহ্মঅস্ত্রের এক বানে এক লক্ষ সাপ হয় ।


১৯। নাগপাশে আবদ্ধ হয়ে থাকা রাম লক্ষণ কে , কার সঙ্গে ও কীসে করে দেখতে গিয়েছিল ?


উত্তর:- নাগপাশে আবদ্ধ হয়ে থাকা রাম লক্ষণ কে সীতাদেবী ত্রিজটা রাক্ষুসীর সঙ্গে পুষ্পক বিমানে করে দেখতে গিয়েছিল ।


২০। রাম লক্ষণ কে নাগপাশ থেকে কে বাঁচিয়েছিল ?


উত্তর:- রাম লক্ষণ কে নাগপাশ থেকে গরুড় পক্ষী বাঁচিয়েছিল ।


২১। কুম্ভকর্ন কতদিন নিদ্রারত থাকেন ও কতদিন জাগ্রত অবস্থায় থাকেন ?


উত্তর:- কুম্ভকর্ন ছয় মাস নিদ্রারত থাকেন । আর একদিনে জাগ্রত অবস্থায় থাকেন ।


২২। কুম্ভকর্ণের ঘুম ভাঙ্গানোর জন্য কি কি করা হয়েছিল ?


উত্তর:-  কুম্ভকর্ণের ঘুম ভাঙ্গানোর জন্য লক্ষ লক্ষ শঙ্খ , ঢাক বাজানো হয়েছিল তার কানের কাছে । বুকের উপর পাথর , বৃক্ষ ফেলা হয়েছিল । কেউ আবার সারাশি দিয়ে কুম্ভকর্ণের গায়ের মাংস টানছিল ।


২৩। কুম্ভকর্ণ ব্রহ্মার কাছে কি বর চেয়েছিল ?


উত্তর:- কুম্ভকর্ণ ব্রহ্মার কাছে গো কর্ন নামে তপোবন দিয়ে হবে এই বর প্রাথনা করেছিল ।


২৪। কুম্ভকর্ণের নাক কান কে ছেদন করেছিল ?


উত্তর:- কুম্ভকর্ণের নাক কান সুগ্রীব ছেদন করেছিল ।


২৫। কুম্ভকর্ণকে কে বধ করেছিল ? কোন অস্ত্রের দ্বারা ?


উত্তর:- কুম্ভকর্ণকে শ্রীরামচন্দ্র বধ করেছিল । ব্রহ্মাঅস্ত্রের দ্বারা । 



২৬। অতিকায় কে ছিলেন ? তাকে কে হত্যা করেছিল ?


উত্তর:- রাবণের পুত্র অতিকায় । লক্ষণ তাকে অজয় অক্ষয় বাণ ছুঁড়ে হত্যা করেছিল ।


২৭। বীর বজ্রদংস্টকে কে হত্যা করেছিল ?


উত্তর:- বীর বজ্রদংস্টকে বানর ভূপতি সুগ্রীব হত্যা করেছিল । 


২৮। রাবণের মামার নাম কি ? তাকে কে হত্যা করেছিল ? 


উত্তর:- রাবণের মামার নাম প্রহস্ত । তাকে নীলবীর হত্যা করেছিল পর্বতের চূড়া দিয়ে ।


২৯। ইন্দ্রজিৎ কোথায় যজ্ঞ করছিল ? তার যজ্ঞ কে ভঙ্গ করেছিল ?


উত্তর:- ইন্দ্রজিৎ নিকুম্ভিলা যজ্ঞাগারে যজ্ঞ করছিল । লক্ষণ গিয়ে তাঁর যজ্ঞ ভঙ্গ করে দিয়েছিল ।


৩০। রাবণের পুত্র ও নাতির সংখ্যা লেখো ?


উত্তর:- রাবণের একলক্ষ পুত্র ও সওয়া লক্ষ নাতির কথা পাওয়া যায় ।


৩১। রাবণের চারটি পুত্রের নাম লেখো ?


উত্তর:- রাবণের চার টি পুত্র হল - ক) ইন্দ্রজিৎ খ) বীরবাহু গ) ত্রিশিরা ঘ) অতিকায় ।


৩২। কুম্ভকর্ণের পুত্র কুম্ভ ও নিকুম্ভকে কে হত্যা করেছিল ?


উত্তর:- কুম্ভকে রাজা সুগ্রীব আর নিকুম্ভকে পবনদূত হনুমান হত্যা করেছিল ।


৩৩। বীর মকরাক্ষকে কে বধ করেছিল কোন বানের দ্বারা ?


উত্তর:- বীর মকরাক্ষকে শ্রীরামচন্দ্র বধ করেছিল অগ্নিবান দ্বারা ।


৩৪। বিভীষণ নিজ পুত্র তরণীসেন কে বধ করার জন্য শ্রীরামচন্দ্র কে কি উপদেশ দিয়েছিলেন ?


উত্তর:- বিভীষণ নিজ পুত্র তরণীসেন কে বধ করার জন্য শ্রীরামচন্দ্র কে তরণীসেনের উপর ব্রহ্মাস্ত্র নিক্ষেপ করতে বলেছিলেন ।


৩৫। ইন্দ্রজিতের অপর নাম কী ? তাকে লক্ষণ বধ করেছিল কোন অস্ত্র দিয়ে ?


উত্তর:- ইন্দ্রজিতের অপর নাম মেঘনাদ । তাকে লক্ষণ বধ করেছিল ব্রহ্মাস্ত্র দিয়ে ।


৩৬। লক্ষণের জীবন রক্ষাথে হনুমান কোথায় কী ঔষধ আনতে গিয়েছিল ?


উত্তর:- লক্ষণের জীবন রক্ষাথে হনুমান গন্ধমাদন পর্বতে , বিশল্যকরণী ঔষধ আনতে গিয়েছিল । 


৩৭। হনুমান কাকে এবং কেন নিজের কক্ষতলে ধারণ করেছিল ?


উত্তর:- হনুমান সূর্য কে । লক্ষণের প্রাণ বাঁচানোর জন্যে নিজের  কক্ষতলে ধারণ করেছিল ।


৩৮। হনুমান গন্ধমাদন  পর্বত আশার সময় অযোধ্যা নগরীতে কী দেখেছিলেন ?


উত্তর:- হনুমান গন্ধমাদন  পর্বত আশার সময় অযোধ্যা নগরীতে দেখে ভরত সারথী সুমন্ত্র , আর বলিষ্ট পুরোহিতদের নিয়ে , সিংহাসনের উপর শ্রীরামচন্দ্রের পাদুকা রেখে রাজ্য শাসন করছে । 


৩৯। মহিরাবন কে ? জন্মের পর সে কোথায় গিয়েছিল ?


উত্তর:- লঙ্কার রাজা রাবণের পুত্র মহিরাবন । মহিতে জন্মগ্রহণ করে । জন্মের পর সে পাতালের ভিতরে গিয়েছিল দিগ্বিজয় করতে । 


৪০। কে কি দিয়ে মহিরাবন কে হত্যা করেছিল ?


উত্তর:- পবন পুত্র হনুমান মহামায়া দেবীর হাতের খড়গ নিয়ে তা দিয়ে মহিরাবন কে হত্যা করেছিল ।


৪১। মহিরাবনের পুত্রের নাম কি ? তাকে কে কীভাবে হত্যা করেছিল ?


উত্তর:- মহিরাবনের পুত্রের নাম অহিরাবন । তাকে হনুমান হত্যা করেছিল , তার দুটি পা ধরে পাথরে আছার মেরে ।


৪২। দেবরাজ ইন্দ্র শ্রীরামচন্দ্র কে যুদ্ধে সাহায্য স্বরূপ কী কী দ্রব্য পাঠিয়েছিলেন ?


উত্তর:- দেবরাজ ইন্দ্র শ্রীরামচন্দ্র কে যুদ্ধে সাহায্য স্বরূপ তার রথ । একটি দিব্য ধনুস্বর ও একটি সুবর্ন টোপর পাঠিয়েছিলেন ।


৪৩। রাবণ কে কোন বান দিয়ে হত্যা করেছিল ?


উত্তর:- রাবণ কে শ্রীরামচন্দ্র ব্রাহ্ম বান দিয়ে হত্যা করেছিল ।


৪৪। রাবণের দেহের সৎকার কে করলেন ?


উত্তর:- শ্রীরামচন্দ্রের আদেশে বিভীষণ রাবণের দেহের সৎকার করলেন ।


৪৫। রাবণের মৃত্যুর পর লঙ্কা রাজ্যের রাজা কে হয়েছিলেন ?


উত্তর:- রাবণের মৃত্যুর পর বিভীষণ লঙ্কা রাজ্যের রাজা কে হয়েছিলেন । 


৪৬। সীতা সতীত্বের অপবাদ ঘোচাতে কী করেছিল ?


উত্তর:- সীতা তার সতীত্বের অপবাদ ঘোচাতে অগ্নিপরীক্ষা করেছিল ।


৪৭। কুবেরের রথের নাম কি ?


উত্তর:- কুবেরের রথের নাম পুষ্পক ।


৪৮। কে ? কার আদেশে সেতু ভঙ্গ করেছিল ?


উত্তর:- লক্ষণ । শ্রীরামচন্দ্রের আদেশে সেতু ভঙ্গ করেছিল ।


৪৯। রাবণের পরমায়ু কত যুগ ছিল ?


উত্তর:- রাবণের পরমায়ু চৌদ্দ যুগ ছিল ।


৫০। শ্রীরামচন্দ্রের চণ্ডাল বন্ধুর নাম কী ?


উত্তর:- শ্রীরামচন্দ্রের চণ্ডাল বন্ধুর নাম গুহক ।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন