বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১

" বীরাঙ্গনা " কাব্যের মূল প্রেরণা হিসেবে কোন বিদেশী কাব্যের নাম উল্লেখ করা যায় ? সেই প্রেরণা দানকারী কাব্যের সঙ্গে কী কী সাদৃশ্য আছে লেখো ?

 

বাংলা অনার্স বীরাঙ্গনা কাব্যের মূল প্রেরণা হিসেবে কোন বিদেশী কাব্যের নাম উল্লেখ করা যায় সেই প্রেরণা দানকারী কাব্যের সঙ্গে কী কী সাদৃশ্য আছে লেখো Bengali honours birangona kabber mul prerona hisabe kon bideshi kabber nam ullekh kora jay sei prerona dankari kabber songe ki ki sadrisho ache lekho


                         প্রশ্নের মান - ৫/৬



প্রশ্ন : " বীরাঙ্গনা " কাব্যের মূল প্রেরণা হিসেবে কোন বিদেশী কাব্যের নাম উল্লেখ করা যায় ? সেই প্রেরণা দানকারী কাব্যের সঙ্গে কী কী সাদৃশ্য আছে লেখো ? 



উত্তর:- ব্রজেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সজনীকান্ত দাসের সম্পাদনায় " বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ " থেকে " বীরাঙ্গনা"র যে সংস্করণ বেরিয়েছে তাতে সম্পাদকদ্বয়  " বীরাঙ্গনা " কাব্যের পশ্চাতে একটি কারণ আবিষ্কার করেছেন । একদিকে অমিত্রাক্ষর ছন্দ সম্পর্কে নবতর সাফল্য প্রদর্শন , অপরদিকে একটি নাটকীয় বিষয়কে অবলম্বন এই দুটি কারণে কবি ( Ovid Publious Ovidius Noso 43 B.C 17 A.D ) ওভিদের কাব্যগ্রন্থ  " The Heroides Of Epistle Of The Heroines " গ্রন্থ দ্বারা প্রভাবিত হয়ে " বীরাঙ্গনা " কাব্য লিখেছেন ।



[    ] মাইকেল মধুসূদন দত্ত যে ওভিদের কাব্য গ্রন্থ দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন , সম্ভবত সেই কথা সর্ব প্রথম উচ্চারণ করেন মাইকেলেরই জীবনীকার যোগিন্দ্রনাথ বসু মহাশয় । তারপর " মধুস্মৃতি " গ্রন্থের লেখক নগেন্দ্রনাথ সোমও একই কথার জেরে টানেন ।



[    ] উভয় গ্রন্থকেই পত্রকাব্য বলা হয়েছে এবং পত্র সংখ্যা যথাক্রমে ওভিদ ২১ টি , মধুসূদন ১১ টি । ওভিদের চারটি পত্রিকার সঙ্গে বীরাঙ্গনার সরাসরি যোগ লক্ষ্য করার মতো । ফিদ্রা , ডিডো , ক্যানেস ও অ্যারিয়ডনী র পত্রাবলি । এছাড়াও উভয়েই পৌরাণিক কাহিনী থেকে গল্প সংগ্রহ করেছেন । আর ছন্দগত সাদৃশ্য একেবারে অঙ্গাঙ্গী যুক্ত । যদিও একথা সহজেই বলা যায় মধুসূদন ছিলেন মধুকর আর তাই কোন একের প্রভাবে তিনি যে প্রভাবিত নন তা তার কথায় স্পষ্ট । মধু ভান্ডার সঞ্চয়ের মতো বিভিন্ন দেশের কাব্য সাহিত্যর চমক প্রদ উপকরন গুলী সংগ্রহ করে এনে যে কাব্য তিনি রচনা করেন তা নিরবধি কাল গৌরজন গান করে তৃপ্ত হবে । ওভিদের সঙ্গে মধুসূদনের কিছু পার্থক্য আছে ওভিদের ভাষা বড়ো বেশি আলংকারিক । তাই নাগরিকগণ যেন প্রাণবন্ত হয়ে ওঠেননি । ওভিদের কাব্য ইউরোপীয় ভোগবাদ ও ঐহিকতা প্রাধান্য পেয়েছে । বীরাঙ্গনায় সেখানে রেনেসাঁসের ফলজাত আদর্শবাদ , নীতিবাদ , সংযম , গৃহ ধর্ম বড়ো হয়ে উঠেছে ।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন