বৃহস্পতিবার, ১৩ মে, ২০২১

রামকৃষ্ণ রায় এর কবি প্রতিভা আলোচনা করো প্রশ্নোত্তর

 

রামকৃষ্ণ রায় এর কবি প্রতিভা আলোচনা করো প্রশ্নোত্তর বাংলা অনার্স প্রশ্নোত্তর bengali honours questions answer ramkrishna ray kobi protiva alochona koro


              প্রশ্নের মান - ৫/৬


প্রশ্ন:  রামকৃষ্ণ রায় এর কবি প্রতিভা আলোচনা করো ?



উত্তর:- শিবায়ন কাব্যর একটি উল্লখযোগ্য কবি রামকৃষ্ণ কবিচন্দ্র । প্রতিভায় তিনি সমসাময়িক অনেক কবির চেয়ে শ্রেষ্ট , রুচিতে তিনি অনিন্দ্য গুণের অধিকারী , পরিমাণ - সামজ্জস্য তাকে বিশেষ প্রসংশা করতে হয় । বাংলাদেশে যদি কোনো গ্রাম্য মঙ্গল কাব্য কে পুরাণের সীমানায় তুলে ধরতে প্রয়াস করে থাকেন , তবে তিনি হলেন শিব মঙ্গলের কবি পন্ডিত রামকৃষ্ণ রায় । 



[    ] কবি তার কাব্য কে " শিবমঙ্গল " আখ্যা দিয়েছেন । এতে কাশী খন্ড , হরিবংশ , বালিকা পুরান , বৃহন্নরদিয় পুরান , মহাভারত , স্কন্দ পুরান , যে সমস্ত সংস্কৃত গ্রন্থে শিবের প্রসঙ্গ আছে সেখান থেকে তিনি কাহিনী গ্রহণ করেছেন , কালিদাসের কুমারসম্ভবের প্রভাবও তাঁর কাব্য বিশেষ ভাবে লক্ষ করা যায় । ২৬ ই পালায় বিভক্ত " শিবমঙ্গল " এ কবি সৃষ্টি তত্ত্ব , কালবিভাগ , তীর্থ মাহাত্ম্য প্রভৃতি ভূমিকার পর মূল কাহিনী গ্রন্থ নে অগ্রসর হয়েছেন । সতীর দেহত্যাগ , যজ্ঞ ভঙ্গ , কালিদাসের কুমারসম্ভবের প্রভাবে মহাদেবের তপভঙ্গ , মদন ভস্ম , পার্বতীর সুকঠোর তপস্যা এবং মহাদেব পার্বতীর পরিণয় বর্ণিত করেছেন । তারপর কবি মূল কাহিনী ছেড়ে কয়েকটি পৌরাণিক শাখা কাহিনী বর্ণনা করেছেন । যেমন - পুরানক্ত মনসার কাহিনী , অন্ধকবি , পরশুরাম রাবণের গল্প , ঊষা অনিরুদ্ধের প্রণয় কাহিনী , বানের সঙ্গে কৃষ্ণের যুদ্ধ , বানের পক্ষে মহাদেবের যোগদান , পরিশেষে হরিহরের মিলন - এবং ঊষা অনিরুধের বিবাহে কাব্য সমাপ্ত করেছেন । এই উপকাহিনি গুলি ক্ষিনসুত্রে মূল কাহিনীর সঙ্গে সম্পৃক্ত ।




[    ] ধর্ম মতের দিক থেকেও তিনি পুরাণের আদর্শ অনুসরণ করে হরিহণের অভেদত্ব প্রমাণ করেছেন । এদিক দিয়ে তার ধর্মবোধ বিশেষ উদার বলে মনে হয় । পরিশেষে অর একটি কথা উল্লেখ করে তার প্রসঙ্গ সমাপ্ত করবো । কবির কাব্যের একাধিক স্থলে চমৎকার দৃষ্টান্ত পাওয়া যাচ্ছে । যথা " পার্বতী ভাগীরথী স্নান করতে গেলেন , এমন সময়ে শঙ্কর মনের দুঃখে নারদ কে কহিতেছেন , " অবধান করহ । " কিংবা অন্তঃপর তারা প্রভৃতি দেবতারা সকল শিবের করে প্রহেলিকা প্রবন্ধে গৌরীকে সম্পর্ন করিয়া কথোপকালে পালন করিয়া হরফে ইঙ্গিত করিতেছেন , " আধান করহ ।" এ গদ্যে একেবারে আধুনিক গদ্য । যারা মনে করেন , ফোট উইলিয়াম কলেজের পন্ডিত মুন্সীরা বাংলা গদ্য সৃষ্টি করেছেন , তারা রাম কৃষ্ণের এ গদ্য রীতি দেখলে পূর্বমত পরিত্যাগ করতে বাধ্য হবেন ।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন