শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২১

ফসিল গল্পে কুর্মি প্রজাদের অর্থনৈতিক অবস্থার পরিচয় দাও প্রশ্নোত্তর

 

বাংলা অনার্স সাম্মানিক bengali honours ফসিল গল্পে কুর্মি প্রজাদের অর্থনৈতিক অবস্থার পরিচয় দাও প্রশ্নোত্তর fosil golpe kurmi projader orthonoitik obosthar porichoy dao questions answer

উত্তর:- সুবোধ ঘোষের “ ফসিল ” গল্পে কুর্মি প্রজাদের কথা উঠে এসেছে । এরা মহারাজার প্রজা  কিন্তু এদের শিক্ষা দীক্ষা ও অর্থনৈতিক উন্নতির ব্যাপারে মহারাজা কখনো কোনো চিন্তা-ভাবনা করেন নি । বরং বিলাস পরায়ন রাজার অর্থের অভাব ঘটলেই প্রজাদের শোষণের ব্যবস্থা করতেন । শোষণ পীড়নে অতীষ্ট হয়ে ভিল প্রজারা অন্যত্র চলে গেলেও কুর্মিরা বাপ ঠাকুরদার ভিটে ছেড়ে যায়নি । রুক্ষ জমিতে খুব কষ্টে চাষ করে ভুট্টা যব আর জনার ফলায় । তার অধেকটাই নিয়ে যায় মহারাজার তসিলদার । মহারাজার ঘোড়ার খাবার হবে । দিতে না চাইলে রাজার সেপাইরা মেরে ধরে কেড়ে নিয়ে যায় । প্রজাদের নিরাপত্তা কিছুই ছিল না । বণিকরা খনি প্রতিষ্ঠা করলে সেখানে নগদ পারিশ্রমিকের আশায় অনেক কুর্মি কুলির কাজ নেয় । কিছুটা আর্থিক স্বাচ্ছন্দ্য ও সুযোগ সুবিধা তারা পায় । কিন্তু নিরাপত্তা সেখানেও তাদের ছিল না । খনির পিট বসে গিয়ে শ্রমিকের মৃত্যু ঘটলে ক্ষতিপূরণ তো দূরের কথা , মৃত্যুটাই গোপন করা হত ।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন