শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১

তেলেনাপোতা আবিষ্কার গল্পের নারী চরিত্র কোনটি ? তার চরিত্রটি আলোচনা করো প্রশ্নোত্তর

 

বাংলা অনার্স সাম্মানিক bengali honours তেলেনাপোতা আবিষ্কার গল্পের নারী চরিত্র কোনটি তার চরিত্রটি আলোচনা করো প্রশ্নোত্তর telenopota abishkar golper nari choritro konti tar choritro ti alochona koro questions answer

উত্তর:- “ তেলেনাপোতা আবিষ্কার ” গ্রন্থের প্রধান নারী চরিত্রটির নাম যামিনী । সে একটি ভাগ্যহীনা মেয়ে । মা ছাড়া তাঁর কেউ নেই । বিরাট অট্টালিকায় ভগ্নস্তূপে বাসিন্দা সে । বোঝা যায় একদিন তার অনেক কিছু থাকলেও আজ সে “ ঘুঁটে কুড়িনির মেয়ে ” ।  


[     ] গল্পে যামিনীকে প্রথম দেখি মৎস শিকার বিলাসী যুবকের চোখে । সে গভীর রাতে কৌতুহল বশে ভাঙ্গা ছাদে উঠে অন্য একটি ঘরের জানালায় , ক্ষীণ আলোয় রহস্যময় ভাবে  একটি মেয়েকে দেখে । সেই ছিল যামিনী । পরের দিন , পুকুরে মাছ ধরার সময় সে যামিনী কে সামনা সামনি দেখে । নি:সংকোচে মেয়েটি অচেনা শহুরে যুবকের সঙ্গে কথা বলে । “ বসে আছেন কেন ? টান দিন ।” 




[    ] যামিনী দুঃখিনী মেয়ে । তোর বিবাহ হয়নি । নিরঞ্জন নামের কোনো এক যুবকের সঙ্গে তার বিবাহ দেবার জন্য তার অক্ষম মা ভেবে রেখেছেন । কিন্তু মিথ্যা বলে নিরঞ্জন অন্যত্র গিয়ে বিয়ে করে সংসার করছে । যামিনীর মা  বিশ্বাস করে , নিরঞ্জন এসে যামিনী কে উদ্ধার করবে  ,  তবে তার মরণ হবে । যামিনী মা কে সত্যি কথাটা বলতে পারেনা । অভাবের সংসার সে কষ্টে চালায় । তার পঙ্গু মায়ের কথায়....“ একধারে মেয়ে পুরুষ হয়ে ও কিনা করছে ।”



[    ] অসহায় পঙ্গু মায়ের মনে স্বস্তি দিতে পড় খাওয়া দুঃখী মেয়েটাকে উদ্ধার করতে মৎসশিকারি যুবকটি হঠাৎ নিরঞ্জনের ভূমিকা নেওয়ায় যামিনী স্বভাবতই যুবকটির প্রতি কৃতজ্ঞ হয়ে ওঠে । ভরসাও করে । যুবকরা কলকাতার  উদ্দেশ্যে রওনা হবার সময় বিদায় জানায় । কথা বলে । লেখকের ভাষায় “ ঠোঁট থেকে নয় , মনে হবে , তার চোখের ভেতর থেকে মধুর একটি সকৃতজ্ঞ হাসি শরতের শুভ্রমেঘের মতো আপনার হৃদয়ের দিগন্ত স্নিগ্ধ করে ভেসে যাচ্ছে ।” কিন্তু এই পর্যন্তই । গল্পে যামিনীর জীবনে সার্থকতার সম্ভাবনা স্পষ্ট হয়নি ।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন