শনিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২১

নরেন্দ্রনাথ মিত্রের “ রস ” গল্পের মাজু খাতুন চরিত্রটি আলোচনা করো । মাজুর প্রথম স্বামীর কীসের ব্যাবসা ছিল প্রশ্নোত্তর

 

বাংলা অনার্স সাম্মানিক bengali honours নরেন্দ্রনাথ মিত্রের রস গল্পের মাজু খাতুন চরিত্রটি আলোচনা করো মাজুর প্রথম স্বামীর কীসের ব্যাবসা ছিল প্রশ্নোত্তর ros golper maju khatun choritroti alochona koro majur prothom swamir kiser babsa chilo questions answer

উত্তর:- নরেন্দ্রনাথ মিত্রের “ রস ” গল্পের যে চরিত্রটি পাঠকের সামনে সবটুকু সহানুভূতি দাবি করে সে মাজু খাতুন । তার জীবনটাই বিড়ম্বনা ।  গুণবতী মেয়ে হওয়া সত্ত্বেও সে পছন্দের স্বামীর ঘর করতে পারে না স্বামীর রূপ তৃষ্ণা প্রবল বলে । প্রথম স্বামীর মৃত্যুর পর তার খুবই কষ্টে দিন কাটে । তাকে দ্বিতীয়বার নিকা করে মোতালেফ । মোতালেফ মাজুর থেকে কমবয়সী দেখতে সুন্দর কর্মঠ । তার ঘরে এসে সে মনের মত কাজ পায় গুড় তৈরি করা । এই কাজ সে ছিল দক্ষ । তার তৈরি গুর বাজারের সেরা । বেশি দামে বিক্রি হয় । এটা মোতালেফ জানত বলেই মাজুকে নিকা করেছিল । 



[    ] মাজু বিবি মোতালেফের মত স্বামী পেয়ে পছন্দের কাজ পেয়ে মনে মনে খুবই খুশি হয় । আন্তরিকতায় যত্নে ভালোবাসায় মোতালেফ কে সে ভরিয়ে তুলতে চাই । কিন্তু মোতালেফ তো মাজুকে নিয়ে সংসার করার জন্য তাকে নিকা করেনি । সে তাকে নিকা করে ভালো গুর তৈরি যন্ত্র হিসেবে । ভালো গুর বেশি দামে বেঁচে পছন্দের প্রার্থীকে ঘরে আনবার পণের টাকা জোগাড় করতে । যেদিন সেটা টাকা যোগাড় হলো যেদিন গুড়ের মরশুম শেষ হলো সেদিন মিথ্যা অপবাদ দিয়ে তালাক দিলো মাজুকে । মাজু বিবি বুঝল কত বড় শয়তান সাংঘাতিক ছল চাতুরীর মানুষ তার পছন্দের স্বামীটা । 


[    ] মাজুকে তাড়িয়েই মোতালেফ ঘরে এনেছে ফুলবানুকে । তাদের সুখ যেন আর ধরে না । পরশীদের মুখে এ কথা শুনে মাজু খাতুনের বুকটা জ্বলে ওঠে ঈর্ষায় । তার মনে হয় সে পাগল হয়ে যাবে । এই মনোকষ্ট ঘুচাবার জন্য সে ভাসুরের আনা সম্বন্ধ পঞ্চাশ বছরের বুড়ো নাদির শেখকেই নিকা করে তার সংসারে এসেছে । যে সংসারে রস গুড়েরকোনো বালাই নেয় । পরে একদিন দু ভাঁড় ভালো রস নিয়ে হাজির , সের দুই ভালো গুঁড় মাজুবিবি যদি বানিয়ে দেয় হাঁটে নিয়ে গিয়ে অচেনা খরিদ্দার কে বেচবে । মাজু প্রথমে গাল মন্দ করলেও এই অসহায় , অনুতপ্ত দ্বিতীয় স্বামীকে তাড়িয়ে দিতে পারেনি । এখানেই মাজু খাতুনের চরিত্র জীবন্ত , সার্থক নারী চরিত্র হয়ে উঠেছে । 


মাজুর প্রথম স্বামী রাজেক মৃধা খেজুর রস গুঁড়ের কারবারি ছিল ।


 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন